Lessons: Basics

Lessons covering the foundational topics. New to Elixir? This is the place to start.

ব্যাসিকস

ইন্সটলেশন, ইন্টারএ্যাক্টিভ প্রম্পট, ব্যাসিক ডাটা টাইপ ও ব্যাসিক অপারেশন

কালেকশন

লিস্ট, টাপ্ল, কীওয়ার্ড, ম্যাপ এবং ফাংশনাল কম্বিনেটর।

ইনাম

কালেকশন এ ইনামুরেট এর সুবিধা নিবার জন্য কিছু এলগোরিদম ।

প্যাটার্ন ম্যাচিং

এলিক্সিরের সবচেয়ে শক্তিশালী বৈশিষ্ট্যের মধ্যে একটি হল প্যাটার্ন ম্যাচিং। এর মাধ্যমে আমরা ভ্যালু, ডাটা স্ট্রাকচার, এমনকি ফাংশনকে ম্যাচ করতে পারি। এই অধ্যায়ে আমরা প্যাটার্ন ম্যাচিং শুরু করতে যাচ্ছি।

কন্ট্রোল স্ট্রাকচার

এই অধ্যায়ে আমরা এলিক্সিরে ব্যবহৃত কন্ট্রোল স্ট্রাকচার নিয়ে কথা বলব।

ফাংশন

এলিক্সির এবং অন্যান্য ফাংশনাল ল্যাঙ্গুয়েজে ফাংশন হল প্রথম শ্রেণীর নাগরিক। এই অধ্যায়ে আমরা এলিক্সিরের বিভিন্ন ধরণের ফাংশন নিয়ে কথা বলব এবং আলোচনা করব এদের পার্থক্য ও ব্যবহার নিয়ে।

পাইপ অপারেটর

পাইপ অপারেটর (|>) এক এক্সপ্রেশানের রেসাল্টকে আরেক এক্সপ্রেশানের প্রথম প্যারামিটার হিসেবে পাঠিয়ে দেয়। অনেকটা ইউনিক্সের পাইপ অপারেটরের (|) মত।

মডিউল

অভিজ্ঞতা থেকে আমরা জানি যে এক ফাইল ও স্কোপে সমস্ত ফাংশন রাখা ঠিক না। এই অধ্যায়ে আমরা আলোচনা করব কিভাবে কিছু ফাংশনকে একত্রিত করা যায় এবং এরপর একটি বিশেষ ম্যাপ, স্ট্রাক্ট নিয়ে কথা বলব যা আমাদের কোড সংগঠনকে আরও সুগঠিত রাখতে সাহায্য করবে।

মিক্স

এলিক্সির নিয়ে আরও গভীরে যাওয়ার আগে আমাদের “মিক্স” সম্পর্কে জানা উচিত। যদি আপনি রুবীর সাথে পরিচিত হয়ে থাকেন তাহলে মিক্সকে ধরে নিতে পারেন বান্ডলার, রুবী-জেম ও রেইকের সমন্বয় হিসেবে। যে কোন এলিক্সির প্রজেক্টের জন্য এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং এই অধ্যায়ে আমরা মিক্সের বিশাল ফাংশনালিটির মধ্যে কতিপয় কিছু নিয়ে আলোচনা করব। মিক্স সংক্রান্ত অন্যান্য বিষয় জানতে রান করুন mix help

এই পর্যন্ত আমরা শুধুমাত্র iex নিয়ে আমাদের কাজ চালিয়ে নিয়েছি, কিন্তু iex এর কিছু লিমিটেশন রয়েছে। বড় কিছু তৈরি করতে আমাদের কোডকে ভাগ করে নিতে হবে অনেকগুলি ফাইলে, সহজতর ব্যবস্থাপনার জন্যে। মিক্স দিয়ে ঠিক সেই কাজটিই করা যায়।

সিজিল

এই অধ্যায়ে আমরা সিজিল দিয়ে কাজ করা ও সিজিল তৈরি করা নিয়ে আলোচনা করব।

ডকুমেন্টেশান

আপনার কোডকে ডকুমেন্ট করুন।

কম্প্রিহেনশান

লিস্ট কম্প্রিহেনশান হল সিন্ট্যাক্টিক সুগার যা এলিক্সির এনুমেরাবলে লুপিং করতে সহায়তা করে। এই অধ্যায়ে আমরা দেখব কি করে লিস্ট কম্প্রিহেনশানকে ব্যবহার করতে হয় ইটারেশান ও জেনারেশানের জন্য।

স্ট্রিং

স্ট্রিং, কার লিস্ট, গ্রাফীম ও কোড পয়েন্ট।